1. [email protected] : editor : Meraj Gazi
  2. [email protected] : admin :
  3. [email protected] : zeus :
বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২, ০১:২৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
রাজবাড়ীতে বড় পর্দায় দেখানো হবে পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠান বর্নাঢ্য আয়োজনে জেলা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন বিদেশী পিস্তলসহ সন্ত্রাসী দুল্লা গ্রেফতার গ্লোবাল টেলিভিশন ভবনে সাংবাদিকদের উপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে মানব বন্ধন বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত রাজবাড়ী সদরে ১০ কৃষক পেলো পাওয়ার টিলার চালিত সিডার সদর উপজেলা মাসিক আইন শৃঙ্খলা কমিটির সভা মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার ও রাজবাড়ী ইসকন মন্দিরের প্রবেশ পথ খুলে দেওয়ার দাবিতে সাংবাদিক সম্মেলন সীতাকুণ্ডে বিস্ফোরণে আহতদের পাশে সংগীত শিল্পী ফারদিন পাংশায় স্বপরিবারে হত্যার উদ্যেশ্যে গভীর রতে বসত ঘরে অগ্নিসংযোগ

মিজানপুর ইউনিয়ন পরিষদ হবে, মানুষের শেষ আশ্রয়স্থল : টুকু মিজি

নিউজ ডেস্ক
  • প্রকাশিত : শুক্রবার, ১২ মার্চ, ২০২১
  • ১৯১ পঠিত

স্টাফ রিপোর্টার, রাজবাড়ী টুডেঃ আসন্ন২০২১সালের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে আয়োজিত মতবিনিময় সভায় এ কথা বলেন আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী আমিন উদ্দিন আহমেদ টুকু মিজি।

১২ মার্চ শুক্রবার বিকেলে মিজানপুর ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের বেনিনগর ঈদগাহ মাঠে এ নির্বাচনী মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

৬নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ আয়োজিত মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে টুকু মিজি বলেন, আসন্ন ইউনিয়ন নির্বাচনে আমি নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী। আমি যদি বিজয়ী হতে পারি এই মিজানপুর ইউনিয়ন পরিষদ হবে জনসাধারণের শেষ আশ্রয়স্থল, আমি যতদিন বেচে থাকবো আমার প্রিয় জন্ম ভূমি মিজানপুর ইউনিয়নের মানুষের সুখে দুঃখে পাশে থাকবো। তাই মানুষের দ্বারে দ্বারে যাচ্ছি। ইনশাল্লাহ আশা করি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভানেত্রী, জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাকে মনোনয়ন দিবেন।

কারণ আমি সবসময় আপনাদের সাথে আছি। দলমত নির্বিশেষে সকল শ্রেণি পেশর মানুষের জীবন মান উন্নয়নে কাজ করছি। সে জন্য আমার বিশ্বাস এই ইউনিয়ন এর প্রত্যেকটা মানুষ আমার সাথে আছে, উপজেলা আওয়ামী লীগ আমার সাথে আছে, জেলা আওয়ামীলীগ আমার সাথে আছে। ইনশাল্লাহ আমি আপনাদের সেবক হবো। আপনারা জানেন, আজকে যারা ঢাকায় বসে মনোনয়নের জন্য বিভিন্ন পাঁয়তারা করছে। যারা রঙিন রঙিন পোস্টার ফেস্টুন ছাপিয়ে মনোনয়ন বাগিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছে। আমি তাদের দুটি কথা বলতে চাই, এই মহামারী, দীর্ঘ করোনায় আপনারা কোথায় ছিলেন? আপনার মানুষের সাথে ছিলেন, এই ইউনিয়নের মানুষের কোনো খোঁজখবর নিয়েছেন কিনা? আগে আপনারা বুকে হাত দিয়ে কথা বলেন। আজকে নির্বাচন আসলেই আপনারা বসন্তের কোকিলের মত বড় বড় ভাইদের দেখিয়ে মনোনয়ন বাগিয়ে নেয়ার চেষ্টা করেন।

ইউনিয়নের প্রত্যেকটা মহল্লায় ২/৩টা খন্ড করে আমি আপনাদের সঙ্গে মত বিনিময় করছি, কারণ আমি মনে করি জনগণই সকল ক্ষমতার উৎস। আমি ঢাকায় যাব মনোনয়ন নিয়ে আসবো এটা কখনো আমি বিশ্বাস করি না। আসলে মানুষের কাছে যেতে হবে, মানুষের জন্য কাজ করতে হবে। সেজন্য আমি কেন্দ্রের বিশ্বাসী না আমি বিশ্বাস করি আমার এলাকার জনগণকে। তাই আমাকে আপনাদের জন্য কাজ করার সুযোগ করে দিবেন। আজকে স্বাধীনতার ৫০ বছর,৩০ বছর আমরা এই ইউনিয়নের ভোট দিয়ে থাকি। বিগতদিনে এই ইউনিয়নে দুইজন মানুষ শাসন করছে ৩০বছর।

৩০বছরে আপনাদের জন্য, এলাকার জন্য কি কাজ তারা করেছে। তার বিচার ভার আপনাদের উপর ছেড়ে দিলাম। এরা কতবার আপনাদের কাছে আসছে আপনাদের আপদে-বিপদে সবসময় আপনাদের পাশে দাঁড়িয়েছে এটা আপনাদের বিবেচনা করতে হবে।
ভোট একটি মূল্যবান জিনিস, এই মূল্য বান জিনিস ভোট, দিতে হবে একজন ভালো মানুষ, একজন সৎ মানুষ কে। আমি বলি না যে আমি ভাল, ভালোরও সংঘা অনেক কঠিন। তবে আপনাদের দেখতে হবে কম খারাপকে। তবে একটা কথা আছে মন্দের ভালো আপনার ভোট টা তাকে দেয়া উচিত। কারণ আপনার ভোট নিয়ে আমি যত অপকর্ম করবো কাল কেয়ামতের ময়দানে হিসাব আপনাকে আর আমাকে দিতে হবে। সে কারণে আপনাকে একজন ভালো লোককে ভোট দিতে হবে আমি দীর্ঘ সময় ৩০বছর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আছি।

সর্ব মোট ৩৫ বছর রাজনৈতিক জীবনে আমি চেষ্টা করেছি দলবল নির্বিশেষে প্রত্যেকটা মানুষের সাথে মিলে মিশে কাজ করার জন্য। যখন আমি সামাজিক কর্মকান্ড করেছি। আমি কখনো দলবাজি করি নাই। আমি যখন সাংগঠনিক কাজ করি সেখানে আমি ছাড় দেই না আমার নেতৃবৃন্দ প্রত্যেকটা নির্দেশনা অনুযায়ী আমি আমার সাংগঠনিক কর্মকাণ্ড পরিচালনা করি, কিন্তু একজন মানুষ হিসেবে যখন আমি সামাজিক কর্মকান্ড করি তখন আমার কাছে দল বড় হয়ে দাঁড়ায় না, আমি মনে করি এই ইউনিয়নের প্রত্যেকটা মানুষ আমার আত্মীয়। প্রত্যেকটি মানুষের প্রতি আমার যেমন হক আছে, তেমনি আমার প্রতি প্রত্যেকটা মানুষের হক আছে। আমি চেষ্টা করি সবসময় দলবল নির্বিশেষে সকল সামাজিক কর্মকান্ডের সাথে সকলকে নিয়ে মিলেমিশে থাকার জন্য। আমি আপনাদের কাছে অনুরোধ করবো আমি আপনাদের কাছে মিথ্যা আশ্বাস দিবোনা।

আমি আপনাদের বলি আমি আজকে যেখানে দাঁড়িয়ে আমি একজন মুসলিম ঘরের সন্তান,আল্লাহকে সাক্ষী করে বলতে পারি আমার সামনে মসজিদ আমি আপনাদের কাছে ওয়াদা দিতে পারি আপনারা যদি আমাকে একবার সুযোগ দেন পরিষদের একটি পয়সা’ আমার পেটে যাবে না, আমার সন্তানদের পেটে যাবে না। ইউনিয়ন পরিষদের প্রত্যেকটি টাকা দিয়ে আমার আপনার ইউনিয়ন জন্য কাজ করবো। আমি সর্বদলীয় ভাবে ইউনিয়ন পরিষদ পরিচালনা করবো। এই ইউনিয়ন হবে, একটি মডেল ইউনিয়ন। একটি সমন্বয় কমিটির মাধ্যমে ইউনিয়ন পরিচালনা করা হবে।

আপনারা যদি আমাকে নির্বাচিত করেন, ইনশাআল্লাহ অনেক ভালো ভালো কাজ করা সম্ভব।

মিজানপুর ৬নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেতা মোঃ শফি মোল্লার সভপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাক রাজু, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুস সালাম বিশ্বাস, সিনিয়র সহ সভাপতি মোঃ আজম মন্ডল, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মোঃ ফিরোজ বিশ্বাস, জেলা ছাত্র লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান মিঠু স্থানীয় নেতাকর্মী।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই জাতীয় আরো খবর
June 2022
M T W T F S S
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
28293031  
© All rights reserved © 2013 Todaybangla24
Theme Customized BY LatestNews