1. [email protected] : editor : Meraj Gazi
  2. [email protected] : admin :
  3. [email protected] : zeus :
রবিবার, ২৬ জুন ২০২২, ০২:৩৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
রাজবাড়ীতে বড় পর্দায় দেখানো হবে পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠান বর্নাঢ্য আয়োজনে জেলা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন বিদেশী পিস্তলসহ সন্ত্রাসী দুল্লা গ্রেফতার গ্লোবাল টেলিভিশন ভবনে সাংবাদিকদের উপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে মানব বন্ধন বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত রাজবাড়ী সদরে ১০ কৃষক পেলো পাওয়ার টিলার চালিত সিডার সদর উপজেলা মাসিক আইন শৃঙ্খলা কমিটির সভা মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার ও রাজবাড়ী ইসকন মন্দিরের প্রবেশ পথ খুলে দেওয়ার দাবিতে সাংবাদিক সম্মেলন সীতাকুণ্ডে বিস্ফোরণে আহতদের পাশে সংগীত শিল্পী ফারদিন পাংশায় স্বপরিবারে হত্যার উদ্যেশ্যে গভীর রতে বসত ঘরে অগ্নিসংযোগ

বিজয়ের মাসে লাল-সবুজে মিলে ওরা আছে, রাজবাড়ীতে জাতীয় পতাকা বিক্রেতা মাদারীপুরের অনার্স পড়ুয়া শিক্ষার্থী

নিউজ ডেস্ক
  • প্রকাশিত : বুধবার, ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৬
  • ২১৯ পঠিত

মো: মাহ্ফুজুর রহমান, রাজবাড়ী টুডে:

বিজয়ের মাস ডিসেম্বর। এ বিজয়ের মাসে, লাল-সবুজ মিশে, স্বাধীনতার চেতনাকে বাঙালী জাতিকে আবারো মনে করিয়ে দিতে আসে। ডিসেম্বর এলেই সবুজের বুকে লাল পতাকা হাতে দেখা মেলে ওদের। এ মাসে জাতীয় পতাকা বিক্রিতে আত্মতৃপ্তি পায় ওরা। এমন একজন মাদারীপুর জেলার শিবচর এলাকার বাসিন্দা সাদেক খান (১৮)।

মঙ্গলবার সকালে কথা হয় সেই পতাকা বিক্রেতার সাথে। পতাকা বিক্রেতা সাদেক খান মাদারীপুর জেলা শহরের সৈয়দ আবুল হোসেন কলেজের অনার্স (বিএসএস) ২য় বর্ষের ছাত্র। ৩ বোন ১ ভাইয়ের মধ্যে সাদেক সবার ছোট। স্বাধীনতার বীর যোদ্ধাদের প্রতি অকৃত্রিম ভালোবাসা আর শ্রদ্ধা রেখেই সে এবারই প্রথম বিজয়ের পতাকা বিক্রিতে নেমেছে বিভিন্ন জেলা শহরে।

দেখা মেলে অপর এক ব্যক্তি মাদারীপুর জেলার শিবচর এলাকার বাসিন্দা মো: আতর আলী শেখ(৩৫)। বছরের ১১টি মাস কাটায় ভ্যান, রিক্সা বা অপরের বাড়ীতে কাজ করলেও বিজয়ের মাস এলে সে নেমে পড়ে ৩০ লাখ শহীদের রক্তে অর্জিত জাতীয় পতাকা হাতে দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে। আর এ পতাকা তুলে দেন স্বাধীন দেশের নতুন প্রজন্মের হাতে হাতে।

পতাকা বিক্রেতা শিক্ষার্থী সাদেক খান বলেন, তার কাছে স্টিকার, লাঠি পতাকা, মাথার ফিতা, জিরো পতাকা, ২ ফুট, সাড়ে ৩ ফুট এবং ৫ ফুট পতাকা রয়েছে। ছোট ছোট কোমলমতি শিশুদের কাছে বিক্রি করেন স্টিকার। রিক্সা, ভ্যান ও সাইকেল চালকদের কাছে লাঠি পতাকা বিক্রি করেন । জিরো পতাকা বিক্রি করেন মোটরসাইকেল এবং ছোট যানবাহনের চালকদের কাছে। আর মাথার ফিতা বিক্রি স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীদের কাছে। ১০ টাকা থেকে শুরু করে ৩০০ টাকা পর্যন্ত বিভিন্ন সাইজের পতাকা বিক্রি করছে।

কেন বিজয়ের মাসে জাতীয় পতাকা বিক্রি করেন? এ প্রশ্নের জবাবে অনার্স পড়ুয়া শিক্ষার্থী পতাকা বিক্রেতা সাদেক খান বলেন, ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধে পশ্চিম পাকিস্তানের হাত থেকে ৩০ লক্ষ শহীদের রক্তের বিনিময়ে অর্জিত আমাদের এ স্বাধীনতা। স্বাধীনতার এ দেশ বাংলাদেশ। বাংলাদেশ স্বাধীনতার দীর্ঘ ৪৬ বছরে পদার্পনে আমাদের নতুন প্রজন্মকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় জাগ্রত করাই মূলত আমাদের লক্ষ্য হওয়া উঠিত।

প্রতি বছরের ডিসেম্বর ও মার্চ মাস এলেই তারা ফেরি করে এ দেশের বিভিন্ন স্থানে জাতীয় পতাকা বিক্রি করে বেড়ান। এবারের ডিসেম্বরেও তারা জাতীয় পতাকা বিক্রি করছেন। রাজবাড়ী জেলা শহরের পান্না চত্ত্বর এলাকা থেকে সকাল ৯ টায় ফেরি করে বিক্রি করছেন জাতীয় পতাকা। দুপুরে আবার চলে যাবেন ফরিদপুর জেলায়। এ ভাবেই ফেরি করে পতাকা বিক্রি করতে করতে মাদারীপুর নিজ জেলায় যাবেন তিনি।

মঙ্গলবার সকালে রাজবাড়ী সদর উপজেলার গোয়ালন্দ মোড় ফজের আলী মার্কেটের সামনে মাদারীপুর জেলার শিবচর এলাকার বাসিন্দা মো: আতর আলী শেখের কথা হলে জানা যায়, ১০/১১ বছর ধরে এ পেশায় জড়িত। দেশের বিভিন্ন জেলা ও উপজেলা শহরে পতাকা বিক্রি করে থাকেন। এ বছরও পহেলা ডিসেম্বর থেকেই পতাকা বিক্রি শুরু করেছেন এবং তা চলবে ১৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত।

স্বাধীনতা ও বিজয়ের মাসে পতাকা বিক্রি করে বেশি আনন্দ পান তিনি। বিজয়ের এ মাসে যদি প্রত্যেকের হাতে একটি করে লাল-সবুজের পতাকা তুলে দিতে পারতেন, তা’হলে তিনি আত্মতৃপ্তি পেতেন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই জাতীয় আরো খবর
June 2022
M T W T F S S
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
28293031  
© All rights reserved © 2013 Todaybangla24
Theme Customized BY LatestNews