1. [email protected] : editor : Meraj Gazi
  2. [email protected] : admin :
  3. [email protected] : zeus :
সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ০৩:২০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
রাজবাড়ীতে বড় পর্দায় দেখানো হবে পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠান বর্নাঢ্য আয়োজনে জেলা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন বিদেশী পিস্তলসহ সন্ত্রাসী দুল্লা গ্রেফতার গ্লোবাল টেলিভিশন ভবনে সাংবাদিকদের উপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে মানব বন্ধন বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত রাজবাড়ী সদরে ১০ কৃষক পেলো পাওয়ার টিলার চালিত সিডার সদর উপজেলা মাসিক আইন শৃঙ্খলা কমিটির সভা মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার ও রাজবাড়ী ইসকন মন্দিরের প্রবেশ পথ খুলে দেওয়ার দাবিতে সাংবাদিক সম্মেলন সীতাকুণ্ডে বিস্ফোরণে আহতদের পাশে সংগীত শিল্পী ফারদিন পাংশায় স্বপরিবারে হত্যার উদ্যেশ্যে গভীর রতে বসত ঘরে অগ্নিসংযোগ

আমাদের রাজবাড়ী জেলা-আব্দুল্লাহ আল মামুন

নিউজ ডেস্ক
  • প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ১৯ মে, ২০২০
  • ৩৪৫ পঠিত

স্টাফ রিপোর্টার, রাজবাড়ী টুডে: সম্রাট আকবরের রাজস্ব মন্ত্রী টোডরমল যে ৩৩ ভাগে রাজস্ব নিতেন সেই সময়ে রাজবাড়ি জেলা মাহমুদাবাদ সরকারে অর্ন্তভুক্ত ছিল।চিরস্থায়ী বন্দোবস্তকালে ১৭৯৩ সালে রাজবাড়ী যশোহর জেলার অর্ন্তভুক্ত হয়েছিল।১৮১১ সালে চন্দনা নদীর পশ্চিমাংশ অর্থাৎ পাংশা ও বালিয়াকান্দি উপজেলার অংশবিশেষ নদীয়া জেলার সাথে সংযুক্ত থাকে।পরবর্তিতে কুস্টিয়া জেলা গঠন হলে এই অংশটি কুস্টিয়ার সাথে সংযুক্ত হয়।

১৮৭০ সালে চন্দনা নদীর পূর্বাংশ তথা গোয়ালন্দ ও রাজবাড়ী উপজেলা এবং পাংশা-বালিয়াকান্দি অংশ বিশেষ ফরিদপুর জেলার অর্ন্তভুক্ত হয়।এ সময় চন্দনা নদীর পশ্চিমাংশ বিশেষ করে পাংশা উপজেলা পাবনা জেলার সাথে সংযুক্ত হয়।১৮৭১ সালে ফরিদপুর জেলা পুন:গঠিত হলে গোয়ালন্দ মহকুমা প্রতিষ্ঠা পায়।

তখন বেলগাছি কিন্তু গোয়ালন্দ মহকুমার এক্টা থানা ছিল এবং রাজবাড়ি নামে কিছুই ছিল না!তবে লক্ষিকোল রাজা সূর্যকুমার এবং বানিবহ জমিদার গিরীজাশংকর মজুমদার বর্তমান রাজবাড়ি পৌর এলাকার সীমানার মধ্যে নানা স্থাপনা গড়ে উন্নত জনপদে পরিনত করেন।

বিনোদপুর সংলগ্ন বাজার গড়ে উঠে যেটাকে রাজবাড়ি বাজারও বলা হত। নদী ভাংগনের ফলে ১৮৭৫ হতে ১৮৮০ সালের মাঝে গোয়ালন্দ মহকুমার অফিস স্থাপনা রাজবাড়িতে স্থায়িভাবে স্থাপন করা হয়। ১৮৯২ সালে জমিদার গিরীজাশংকর মজুমদার গোয়ালন্দ মডেল হাই স্কুল প্রতিষ্ঠা করেন যেটা আজ রাজবাড়ি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় (জেলা স্কুল) নামে পরিচিত। রাজা সূর্যকুমার ১৮৮৮ সালে অবশ্য আর এস কে স্কুল প্রতিষ্ঠা করেন।১৯১৩ সালে রাজবাড়ী ইউনিয়ন কমিটি গঠিত হয় যা ১৯২৩ সালে মিউনিসিপালিটি রুপে প্রতিষ্ঠা পায়। ১৯৩৭ সালে উপমহাদেশ এর একমাত্র ড্রাই আইস ফ্যাক্টরি প্রতিষ্ঠিত হয় রাজবাড়ি সরকারি কলেজের পশ্চিমে।১৯৫১ সালে বিনোদপুরে বিদ্যুৎ পাওয়ার প্লান্ট স্থাপিত হয়।১৯৮৪ সালের পহেলা মার্চে গোয়ালন্দ মহকুমাকে রাজবাড়ি জেলা হিসেবে ঘোষনা করা হয়। পদ্মা-যমুনার মিলনস্থল গোয়ালন্দ হতে আসাম মেল ট্রেন চলত, স্টিমারে ঢাকা, চাঁদপুর, নারায়নগঞ্জ, বরিশাল যাওয়া যেত। গোয়ালন্দ ছিল Gate way of Bengal।

কিছু ঐতিহ্য: শাহবাগ জাদুঘরে মূলঘরের জমিদারের পালংক এখনো রয়েছে। ঐতিহাসিক চাদ সওদাগরের সপ্তডিঙ্গা বেলগাছি হড়াই নদীতে ডুবে যায়, জায়গাটা এখন চাদ সওদাগরের ঢিবি নামে পরিচিত।পর্যটক টাভার্নিয়ারের বর্ননা অনুসারে চর্তুদশ শতকে আড়কান্দিতে জাহাজ নির্মান কেন্দ্র ছিল। সুলতানি আমলে পঞ্চদশ শতাব্দীতে মাহুয়ান বাংলাদেশে আসেন, তার মতে পাংশা থানার যশাই ইউনিয়নে উৎকৃষ্ট মানের কাগজ উতপাদন হত, এই কাগজি (উপাধি) পরিবার এখনো কিছু আছে উদয়পুর ও পাটকিয়াবাড়িতে। পাচুরিয়ার মুকুন্দিয়া ১৪২২ সালে জমিদার দ্বারকানাথ সাহা চৌধুরি এর ছেলে সুদৃশ্য মঠ নির্মান করেন।

শিল্পকলা একাডেমির পাশে ঊডহেড পাব্লিক লাইব্রেরি ১৯১৪ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। ১৪৮০ সালের দিকে হযরত শাহ পাহলেয়ান ইসলাম প্রচারের জন্য বালিয়াকান্দি সেকাড়া আসেন, এখানেই তার মাজার।সাহিত্যিক মীর মোশারফ হোসেন, কাজি মোতাহার হোসেন, কাজি আব্দুল ওদুদ,শিল্পী মনসুর উল করিম, শিল্পী কাংগালিনী সুফিয়া, চিত্রনায়িকা রোজিনা, অস্কার বিজয়ী নাফিজ বিন জাফর, অলিম্পিক তারকা ডলি প্রমুখ রাজবাড়ির কৃতি সন্তান। জেলার প্রচলিত লোকজ উৎসবের মাঝে ঢেঁকিনাচ, ছোকরানাচ, ধোয়াগান, পাচুরিয়া বারুনি মেলা, নলিয়া হরি ঠাকুরের মেলা, লক্ষিকোল বুড়ির মেলা,জারিগান, ঘেটু গান উল্লেখযোগ্য।

প্রবাদ প্রবচন:

“নামে খায় বেলগাছির গুড়”

ইলিশ মাছের তিরিশ কাটা

বোয়াল মাছের দাড়ি

টিক্কাখান ভিক্ষা চায়

গোয়ালন্দের বাড়ি।

(অনেক আছে ২টা দিলাম)

রাজবাড়ি কিন্তু মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে মুক্ত হয় ১৯৭১ সালের ১৮ ডিসেম্বর।৮নং সেক্টর কমান্ডার লে কর্নেল (অবসর) আবু ওসমান চৌধুরি জন্ম চাঁদপুর হলেও তার পিতার স্থায়ি বসতির কারনে খানখানাপুর থাকতেন।১৮৭১ সালে উপমহাদেশের প্রথম রেল চালু হলে গোয়ালন্দ হতে কলকাতা ট্রেন চালু হয়। এক সময় মুলত রেল জেলা হিসেবে পরিচিত ছিল রাজবাড়ি। কালের বির্বতনে আজ অনেক পরিবর্তন হয়েছে। এগিয়ে যাক প্রানের রাজবাড়ী।।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই জাতীয় আরো খবর
June 2022
M T W T F S S
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
28293031  
© All rights reserved © 2013 Todaybangla24
Theme Customized BY LatestNews